অন্যান্য

ভারতে ধর্ষণ মামলার শুনানিতে যাওয়ার পথে নারীর গায়ে আগুন


সাম্প্রতিক সময়ে ভারতে নারীর প্রতি সহিংসতার বিষয়টি আলোচনায় এসেছে

ছবির কপিরাইট
Getty Images

Image caption

সাম্প্রতিক সময়ে ভারতে নারীর প্রতি সহিংসতার বিষয়টি আলোচনায় এসেছে

ভারতের উত্তরাঞ্চলে ধর্ষণ মামলার শুনানির জন্য আদালতে যাওয়ার সময় ২৩ বছর বয়সী এক নারীর শরীরে আগুন লাগিয়ে দেয়া হয়েছে।

হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন ঐ নারী ধর্ষিত হয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেছিলেন।

মার্চ মাসে উত্তর প্রদেশে দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছিলেন ঐ নারী।

পুলিশ জানিয়েছে, ঐ নারীর শরীরে আগুন লাগানোর অভিযোগে দুই অভিযুক্ত ধর্ষণকারীসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ঐ নারী একটি ট্রেন স্টেশনের দিকে যাওয়ার সময় কিছু লোক তাকে আক্রমণ করে এবং পাশের একটি মাঠে নিয়ে তার শরীরে আগুন লাগিয়ে দেয়।

ঘটনাটি যেই জেলায় ঘটেছে, সেই উনানো জেলা সম্প্রতি আরেকটি ধর্ষণের ঘটনায় আলোচনায় এসেছে।

ক্ষমতাসীন দলের একজন আইনপ্রণেতার বিরুদ্ধে এক নারী ধর্ষণের অভিযোগ আনার পর অভিযোগকারী নারী গাড়ি দুর্ঘটনার শিকার হন। এরপর পুলিশ ঐ আইনপ্রণেতার বিরুদ্ধে হত্যা মামলার তদন্ত শুরু করে।

ঐ ঘটনায় ধর্ষণের অভিযোগ করা নারীর দুই আত্মীয় মারা যায় এবং তার আইনজীবী আহত হয়।

এবার আরেক নারীর শরীরে আগুন লাগানোর ঘটনায় পুরো ভারতে ব্যাপক জনরোষ সৃষ্টি হয়েছে।

সপ্তহখানেক আগেই হায়দ্রাবাদে এক নারীকে ধর্ষণ করে গায়ে আগুন লাগিয়ে হত্যা করার ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই উত্তর প্রদেশে এই ঘটনা ঘটলো।

আরো পড়তে পারেন:

হায়দ্রাবাদের পর এবার বিহারে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে হত্যা

ধর্ষণকারীকে ‘পিটিয়ে হত্যার’ দাবি ভারতীয় এমপির

ধর্ষণ: ‘নিজে ধর্ষিত হলাম, ভয় পাচ্ছি মেয়েদের নিয়েও’

ধর্ষণকারী কোন ধর্মের, ভারতে বিতর্ক যখন তা নিয়ে



Source link

Comment here